Friday , October 22 2021
Home / রকমারি সংবাদ / কিভাবে ধুমপানের আসক্তি থেকে মুক্তি পাবেন?? ১০টি ধাপে- ফিরে আসুন ধোঁয়াটে জগত থেকে

কিভাবে ধুমপানের আসক্তি থেকে মুক্তি পাবেন?? ১০টি ধাপে- ফিরে আসুন ধোঁয়াটে জগত থেকে

মানুষের জীবন এমনিতেই সংক্ষিপ্ত। এই সংক্ষিপ্ত জীবনকে আরও সংক্ষেপ করছি নিজের আসচেতনতায়।ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর তা আমরা সবাই জানি। এর ফলে শুধু শারীরিক ক্ষতি হয় তা নয়, শারীরিক ক্ষতির পাশাপাশি মানসিক আর আর্থিক ক্ষতিও সাধিত হয়। ধূমপানের ফলে ফুসফুসের ক্যান্সার, হার্টের রক্তনালী সরু হয়ে হার্ট এ্যাটাকের ঝুঁকি বৃদ্ধি, মস্তিষ্কে রক্ত চলাচলে বাধা, যৌন ক্ষমতা হ্রাসসহ নানা রকম ক্ষতি হতে পারে। শুধু যে নিজের ক্ষতি হয় তা কিন্তু নয়, ধূমপায়ীর অজান্তেই ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে তার আপনজনেরাও। অনেকেই ধূমপান থেকে চিরতরে মুক্তি পেতে চান, কিন্তু নানা কারনেই নিজেদেরকে ধূমপান থেকে দূরে রাখতে পারেন না। এর কারণ হতে পারে কিভাবে ধূমপান ছাড়া যায় তা সম্পর্কে জ্ঞান না থাকা। ধূমপান থেকে মুক্তি লাভের জন্য কিছু উপায় আছে। যারা এর হাত থেকে মুক্তি পেতে চান তারা অনুসরন করে দেখতে পারেন এসব উপায়।

কিভাবে ধুমপানের আসক্তি থেকে মুক্তি পাবেন তার ধাপে ধাপে বর্ননা দেয়া হল:

১.প্রথমে সিদ্ধান্ত নিন কেন ধূমপান ছাড়া আপনার জন্য জরুরী। অর্থাৎ কি কারণে ধূমপান ছাড়তে চান। যেমন ক্যান্সার ও হার্ট এ্যাটাকের ঝুঁকি কামাতে অথবা এটা হতে পারে আপনার সন্তান এবং পরিবারের ক্ষতির কথা মাথায় রেখে অথবা ধুমপানের শারিরিক কূফলের কথা মাথায় রেখে। একটা পরিষ্কার লক্ষ্য ধুমপান ছারার জন্যে সবচেয়ে বেশি কাজে দিবে।

২.মুখকে ব্যাস্ত রাখার জন্য সাবস্টিটিউট হিসেবে চুইং-গাম, দারুচিনি বা আর্টিফিশিয়াল সিগারেট ব্যাবহার করতে পারেন। একটি জরিপে দেখা গেছে, ২৫ ভাগ ধূমপায়ী লোক এই আইডিয়াটিকে সমর্থন করেছে। প্রথম সপ্তাহ কষ্ট করে এভাবে চালাতে থাকলে পরের সপ্তাহেই আপনি নিজে বুঝতে পারবেন, ধূমপান- খুব জরুরী কিছু না।

৩.একা একা ধূমপান না ছেড়ে পরিবারের অন্যান্য সদস্যের মধ্যে যদি ধূমপায়ী কেউ থাকেন তাকে নিয়ে বা বন্ধু-বান্ধব ও সহকর্মীদের মাঝে কেউ ধূমপান ছাড়তে চাইলে একসঙ্গে ধূমপান পরিত্যাগের চিন্তা করুন। সেই সাথে এমন জায়গায় যাবেন না বা এমন মানুষদেরও এড়িয়ে চলার চেষ্টা করবেন যারা আপনাকে ধূমপানের জন্য আগ্রহী করতে পারে। যখন ধূমপান একদম ছেড়ে দিতে পারবেন তখন আর সমস্যা হবেনা এমন জায়গায় গেলে বা এমন মানুষদের সাথে মিশলে।

৪.ধূমপান ছেড়ে দিলে মানসিক চাপ তৈরি হতে পারে, সেই মানসিক চাপ কমাতে চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে হালকা ম্যাসাজ করে নিন বা ব্যায়াম করুন।

৫.ধুমপানের সাথে সাথে অ্যালকোহল খাবার অভ্যাস থাকলে সেইটাও পরিহার করুন। অ্যালকোহল পানের অভ্যাস থাকলে ধূমপান ত্যাগ করা কঠিন হতে পারে।

 

৬.বারবার ধূমপান করার ইচ্ছা হলে মনোযোগ অন্যদিকে নিতে চেষ্টা করুন। কোথাও ঘুরতে চলে যেতে পারেন। কোথাও যেতে না পারলে বাসায় বসেই গান শুনুন বা সিনেমা দেখুন। এসব করতে না চাইলে ঘরের কোন কাজ করতে পারেন যেমন ঘর পরিষ্কার করতে পারেন বা কাপড় ধুয়ে ফেলতে পারেন। অথবা কোন এক বেলার রান্না করে ফেলতে পারেন।

৭.ধূমপান ত্যাগের জন্য বার বার চেষ্টা করুন। একবার ছেড়ে দিলে দ্বিতীয় বার আর ধূমপান করবেন না।

৮.নিজের শরীরের প্রতি যত্ন নিন। নিয়মিত ব্যায়াম করুন। সেই সাথে প্রচুর পরিমাণ সবুজ শাক-সবজি ও রঙিন ফলমুল খান।

৯. নিজেকে প্রতিদিন পুরষ্কৃত করুন ধুমপান না করার জন্যে। একটি জাড় বা মাটির ব্যাংকে টাকা জমান প্রতিদিন যে টাকা আপনি ধুমপানের জন্যে ব্যয় করতেন। কিছুদিন পর দেখবেন এতো বেশি টাকা জমে গেছে যেটা দিয়ে আপনি হয়ত খেলাধুলার কিছু কিনতে পারছেন অথবা নিজের শারিরিক আরামের জন্যে কোনো কিছু কিনতে পারছেন।

১০.ধূমপান ছাড়ার সব থেকে জরুরি কথা মনে রাখবেন যে- ধূমপান আপনি বন্ধু-বান্ধব বা প্রেমিকাকে খুশী করার জন্য ছাড়ছেন তা নয়, বরং আপনার সুস্বাস্থ্যের জন্যই ছাড়ছেন। নিজের জীবনকে সুন্দর করে গুছিয়ে নিতেই এই পদক্ষেপ তা মাথায় রাখবেন। তাহলেই ধূমপান ছাড়া সহজ হবে।

অনেকেই এমনটা মনে করেন যে ধূমপানের ফলে কষ্ট লাঘব হয় বা টেনশন কমে। ধূমপান কখনই আপনার কষ্ট লাঘব করার ক্ষমতা রাখেনা, বরং ধূমপানের ফলেই দেখা যায় নানা ধরনের শারীরিক ও মানসিক জটিলতা। তাই নিজের সুন্দর ও উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্যই ধূমপান ছেড়ে দেয়া উচিত হবে যে কোন ধূমপায়ী ব্যক্তির জন্য।

টপারবিডি বাংলা-৭৭ম ১০০২১

আপডেট পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সঙ্গেই থাকুন,ধন্যবাদ

Check Also

ইসলামে ভালোবাসার বাণী ও ন্যায়বিচার

টপারবিডি ডেস্কঃ অমুসলিমদের কেউ কেউ মনে করেন ইসলাম বিশ্বজুড়ে এত মিলিয়ন অনুসারী পেতে সক্ষম হতো …