Saturday , December 15 2018
Home / জাতীয় / ১৯৮ টি দেশে বাংলাদেশি রপ্তানি পণ্যের চাহিদা বাড়ছে

১৯৮ টি দেশে বাংলাদেশি রপ্তানি পণ্যের চাহিদা বাড়ছে

বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলির সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশও তাদের পণ্যদ্রব্য রপ্তানি বৃদ্ধির মধ্য দিয়ে চলেছে, উন্নয়নের পথে। তাই তারা শুধু ৩০ বিভাগ অগ্রাধিকার দেয়নি। এমনকি ট্যুরিজম,  ইঞ্জিনিয়ারিং ও আইসিটি মতো কিছু সেবা ক্ষেত্রকেও তালিকায় যুক্ত করেছে, এমনটাই জানায় রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ই পিবি)। 

বিশ্বের ১৯৮ টি দেশে বাংলাদেশি পণ্যের চাহিদা সহজেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইপিবির তথ্যের ভিত্তিতে বাংলাদেশি রপ্তানি পণ্যের সংখ্যা ৭৪৪ টি। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্র থেকে জানা যায়,বাংলাদেশের উৎপন্নজাত পোষাক থেকে শুরু করে গার্মেন্ট  অ্যাক্সেসরিজ, সফটওয়্যার ও আইটি এনাবল সার্ভিসেস, আইটি পণ্য, ওষুধ, ফার্নিচার, জাহাজ, চামড়াজাত পণ্য ও জুতা, পাটজাত পণ্য, প্লাস্টিক পণ্য, কৃষিপণ্য ও অ্যাগ্রো প্রসেসড পণ্য,  আসবাবপত্র, টেরিটাওয়েল, লাগেজ, সিরামিক, ওষুধ, চামড়াজাত পণ্য, আসবাবপত্র, গরু-মহিষের হাড়, নারকেলের ছোবড়া, আইটি পণ্য,চিংড়ি, কুইচ্চা মাছ ও শাকসবজির পর্যন্ত সমস্ত দ্রব্যের রপ্তানির  চাহিদা বাড়ছে  জাপান, অস্ট্রেলিয়া, তুরস্কসহ ২৫ টি দেশগুলিতে।

তাই রপ্তানির বৃদ্ধিতে বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে।এই উদ্দেশ্যে ১২ টি পণ্যের রপ্তানিতে অগ্রাধিকার দিয়েছে ২০১৫  -২০১৮ সাল পর্যন্ত,এমনটাই জানান বাংলাদেশের বানিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। এমনকি ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাংলাদেশের রপ্তানি আয় ৩৪.২৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বৃদ্ধি  পেয়েছে।,এমনটাই জানিয়েছে ইপিবি।এর মধ্যে এসেছে ৪১.৮৬% ওভেন পণ্য, ৩৯.৮২% নিটওয়্যার পণ্য, ২.৭৮% পাট ও পাটজাত পণ্য, ২.৫৮% টেক্সটাইল পণ্য, ২.০৭% লেদার অ্যান্ড লেদার  গুডস পণ্য, ১.৮২% হিমায়িত খাদ্য পণ্য এবং ১.৫৫% চামড়ার জুতা রপ্তানি থেকে।

আরও পড়ুন

আগামী নির্বাচনে মহাজোটের সঙ্গে থাকবো কিনা সেটা পরিস্থিতিই বলে দেবে

টপারবিডি ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ বলেছেন, আগামী নির্বাচনে …