Monday , April 6 2020
Home / খেলাধুলা / ক্রিকেট / আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেয়াই লক্ষ্য মাশরাফিদের
ফাইল ছবি

আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেয়াই লক্ষ্য মাশরাফিদের

অনলাইন ডেস্কঃ দুই ম্যাচ দাপুটে জয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল নিশ্চিত হয় টাইগারদের। বাকি দুই ম্যাচ এখন আনুষ্ঠানিকতার। ফাইনাল নিশ্চিত হলেও আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই। আগের ম্যাচের মতো সমান গুরুত্ব দিয়েই জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। দলের কারও মধ্যে কোনো ধরনের রিলাক্স কাজ করছে না বলে জানান, ওপেনার তামিম ইকবাল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও ভালো খেলতে মুখিয়ে টাইগাররা। অন্যদিকে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ওঠার জন্য সর্বোচ্চটা দিয়ে লড়বে জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের ম্যাচটি আজ দুপুর ১২টায় শুরু হবে, মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে।

ফাইনালের আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেওয়ার পালা। সে ক্ষেত্রে দলের রিজার্ভ বেঞ্চের খেলোয়াড়দেরও যাচাই করে নিতে পারেন টিম ম্যানেজমেন্ট। তাতে একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে। সাইফুদ্দিনের বদলে আজ খেলতে পারেন সানজামুল ইসলাম। মোহাম্মদ মিঠুন ও আবুল হাসানকে খেলানোর ব্যাপারে তেমন গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না। কেননা জয়ের ছন্দ ধরে রাখতে চায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদের মতে, জয়ের অভ্যাস থেকে দূরে গেলেই সমস্যা। তাই ফাইনালের আগে জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলোয়াড়দের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ততটা সুযোগ থাকছে না। জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

ত্রিদেশীয় সিরিজে শ্রীলংকাকে হারানোয় ফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে জিম্বাবুয়ে। ফাইনালে খেলতে নিজেদের সেরাটাই উপহার দিতে চাইবে তারা। ঘরের মাঠে বাংলাদেশ খুবই শক্তিশালী। আগের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়ে তুলতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। একপেশে ম্যাচে হেরেছে। তারপরও আত্মবিশ্বাসী জিম্বাবুয়ে। দলটির উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান পিটার মুর জানান, নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে বাংলাদেশকে হারানো সম্ভব। সিরিজে ফাইনালে খেলাই লক্ষ্য তাদের।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে আজ ৫৩তম ওয়ানডে খেলছে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে জয় পেলেই অনন্য রেকর্ড গড়বেন। সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার সুমনকে ছাড়িয়ে বাংলাদেশের ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জয়ের কৃতিত্ব দেখাবেন মাশরাফি। জয়ের শতকরা হারে আগেই সবাইকে ছাড়িয়ে যান সফল এই কাপ্তান। ওয়ানডেতে মাশরাফির নেতৃত্বে ৫২ ম্যাচে বাশারের সমান ২৯টিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

অন্যদিকে মাশরাফির মাইফলকের ম্যাচে আরেকটি রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে তামিম ইকবালও। ৬৬ রান পেলে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬ হাজার রান হবে এই ওপেনারের। চলমান সিরিজেই তিন ফরম্যাটের ক্রিকেট মিলিয়ে ১১ হাজার রান সংগ্রহের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন তামিম। তিন ফরম্যাটে ১০ হাজার রান হয়েছে সাকিব আল হাসানের। এখন তিন ফরম্যাটে ৫০০ উইকেট শিকারের দ্বারপ্রান্তে সাকিব। এ রেকর্ড গড়তে আরও ৭টি উইকেট প্রয়োজন তার।

এদিকে ত্রিদেশীয় সিরিজে তেমন দর্শক-সমাগম হচ্ছে না মিরপুরে। বাংলাদেশ-শ্রীলংকার ম্যাচ ছাড়া অন্য ম্যাচগুলোয় ছিল দর্শক-খরা। বাংলাদেশের ম্যাচে কিছু দর্শক মাঠে এলেও জিম্বাবুয়ে-শ্রীলংকার ম্যাচে গ্যালারি ছিল ফাঁকা। বাংলাদেশের মাটিতে দীর্ঘদিন পর ত্রিদেশীয় সিরিজ। কিন্তু দর্শকের মধ্যে ততটা আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। তবে বাকি ম্যাচগুলো দর্শক হবে বলে প্রত্যাশায় বাংলাদেশ।

টপারবিডি বাংলা-৭৭ম ৩২২১০

আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

Check Also

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমিয়ে দেবে কিসমিস!

কিসমিসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, যা হাড় মজবুত করতে বেশ ভূমিকা পালন করে। কিসমিসে আরো …