Sunday , November 18 2018
Home / অন্যান্য / রান্নাবান্না / বৃষ্টিতে খিচুড়ি ও ইলিশ

বৃষ্টিতে খিচুড়ি ও ইলিশ

ইলিশের দম

উপকরণ: ইলিশ মাছ ৮ টুকরা, সয়াবিন তেল ১ কাপ, হলুদ, লবণ পরিমাণমতো, কাঁচা মরিচ ৮-১০টি

প্রণালি: মাছে লবণ ও হলুদ মাখিয়ে রাখুন। টিফিন বক্সে মাছগুলো সাজিয়ে নিন। পাত্রটি একটু বড় নিয়ে একটা একটা করে মাছগুলো সাজিয়ে দিতে হবে। এবার মাছের ওপরে সবটুকু তেল, কাঁচা মরিচ (চিরে দিন), আচারের তেল দিয়ে অল্প পরিমাণ পানের ছিটা দিয়ে দিন। কড়াইয়ে পানি দিয়ে ভালোমতো আটকে টিফিন বক্সটি বসিয়ে দিতে হবে। ওপরে ভারী কিছু চাপা দিয়ে ২০ মিনিট পরে নামিয়ে নিয়ে খিচুড়ির সঙ্গে পরিবেশন করুন।
ভুনা খিচুড়ি

 

উপকরণ: পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, ভাজা মুগডাল ১২৫ গ্রাম, মসুর ডাল ১২৫ গ্রাম, দেশি পেঁয়াজ কুচি ২ কাপ, আদা ও রসুনবাটা ২ টেবিল চামচ, জিরার গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, এলাচ ৫-৬টি, দারুচিনি ২-৩ টুকরা, তেজপাতা ২টি, হলুদ ও মরিচের গুঁড়া পরিমাণমতো, সরিষার তেল বা সাদা সয়াবিন তেল ১ কাপ, লবণ পরিমাণমতো, গরম পানি পরিমাণমতো, আস্ত কাঁচা মরিচ ৮-১০টি।

প্রণালি: পোলাওয়ের চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। হাঁড়িতে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ কুচিগুলো ভাজুন। বাদামি রং হলে আস্ত এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা দিয়ে নাড়তে হবে। তারপর আদা, রসুনবাটা, হলুদ, মরিচের গুঁড়া দিয়ে কিছুক্ষণ কষান। জিরার গুঁড়া দিয়ে আরও একটু কষান। ভাজা মুগডাল ও ভেজানো মসুর ডাল দিতে হবে। ডালগুলো দিয়ে আরও কষাতে হবে। অর্ধেক সেদ্ধ হলে পোলাওয়ের চাল দিন। ভালো করে ভেজে গরম পানি দিন। সবশেষে লবণ, কাঁচা মরিচ দিয়ে দমে রাখুন। রান্না হয়ে গেলে পেঁয়াজ বেরেস্তা ও সালাদসহ পরিবেশন করুন।

আলু ভাজা

উপকরণ: বড় আলু ৪-৫টি, হলুদ, লবণ পরিমাণমতো, মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, সয়াবিন তেল ৩ কাপ।

প্রণালি: আলু ভালো করে ছিলে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। আলু গোল গোল চাকা করে কেটে নিয়ে হলুদ, লবণ ও মরিচের গুঁড়া মাখিয়ে ডুবো তেলে মচমচে করে ভাজুন। ভাজা হয়ে গেলে ছাঁকনি দিয়ে আলুগুলো তুলে নিতে হবে।

বেগুন ভাজা

উপকরণ: বেগুন ২টা, হলুদ ও লবণ পরিমাণমতো, মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, আদা-রসুনবাটা ১ চা-চামচ, সয়াবিন তেল ২ কাপ
প্রণালি: বেগুন ২টা চাক চাক করে কেটে ভালো করে ধুয়ে নিয়ে হলুদ, লবণ, মরিচের গুঁড়া, ও আদা-রসুনবাটা দিয়ে মাখিয়ে নিতে হবে। এরপর ডুবো তেলে ভেজে নিন।