Thursday , November 14 2019
Home / স্বাস্থ্য / খাদ্য ও পুষ্টি / আদা খান বুঝে শুনে

আদা খান বুঝে শুনে

আদা অনেক উপকারি খাবার হিসেবেই আমরা জানি। ঠাণ্ডা লাগা, ব্যথা কমানো, হজমের সমস্যা ইত্যাদিতে আদার প্রভূত গুণ নিয়ে চিকিতৎসক, ডায়টিশিয়ান বার বার বলেছেন। তবে সেই সঙ্গেই আরও একটি বিষয় চিকিৎসকরা বলে থাকেন।

আদা খাওয়া উপকারি হলেও কিছু কিছু সময় অত্যন্ত উপকারি এই খাবারই হয়ে উঠতে পারে শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। জেনে নিন কোন কোন ক্ষেত্রে আদা ক্ষতিকারক দিক হতে পারে।

) রক্তের ডিজঅর্ডার:

আদা শরীরের রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে। ওবেসিটি বা ডায়াবেটিসের সমস্যায় তাই আদা খুবই উপকারি। আবার হিমোফিলিয়ার সমস্যা থাকলে আদার এই গুণ নেগেটিভ প্রভাব ফেলতে পারে। হিমোফিলিয়া বংশগত ডিজঅর্ডার। হিমোফিলিয়ার ওষুধের সঙ্গে আদা খেলে তা ওষুধের প্রভাবে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে।

) প্রেগন্যান্ট:

আদার মধ্যে এমন অনেক পদার্থ থাকে যা পেশীর স্বাস্থ্য ভাল রাখতে ও হজমে সাহায্য করে। প্রেগন্যান্সিতে বেশি আদা খেলে তা পেশীর সংকোচন ঘটিয়ে প্রিটার্ম লেবারের সম্ভাবনা থাকে। তাই অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে আদা খান।

) কোনও বিশেষ ওষুধে:

হাইপারটেনসন বা ডায়াবেটিসের ওষুধ খেলে আদা খাওয়া এড়িয়ে চলাই ভাল। আদা রক্তকে পাতলা করে রক্তচাপ কমিয়ে দেয়। তাই সাধারণ ভাবে আদা খাওয়া উপকারি হলেও অ্যান্টি-কোয়াগুলান্ট, বিটা-ব্লকারস বা ইনসুলিনের মতো ওষুধের প্রভাব কমিয়ে দিতে পারে আদা।

) আন্ডারওয়েট ( যাদের ওজন কম):

যদি আপনি ওজন বাড়ানোর চেষ্টা করে থাকেন তা হলে আদাযুক্ত খাবার বা আদা চা খাওয়া এড়িয়ে চলুন। আদার মধ্যে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার থাকে। যা পাকস্থলীর পিএইচ মাত্রা বাড়িয়ে দিয়ে পৌষ্টিকতন্ত্রকে উত্তেজিত করে তোলে।

Check Also

শীতে শিশুর যত্নে কিছু ঘরোয়া উপায়

অনলাইন ডেস্কঃ তীব্র শীত চলছে। এই শীতে শুধু বৃদ্ধরাই নয় শিশুদেরও অসুস্থতার ঝুঁকি বেড়ে যায়।তাই, …